দেশে বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় সময় অ’নৈতিক সম্পর্কের ঘটনা উঠে আসে। এমনকি কিছু খারাপ চরিত্রের পুরুষ সুযোগ পেলেই মেয়েদের সাথে খারাপ কাজ করতে চায়। তবে অনেক সময় এই সকল ঘটনা প্রতিবেশিরা টের পেয়ে সেই সকল খারাপ চরিত্রের পুরুষদের তা’ড়া করে। আর এবার তেমনি একটি অভিযোগ উঠে এসেছে বগুড়ার শিবগঞ্জ থেকে। আর এই ঘটনা নিয়ে বর্তমানে বগুড়ার শিবগঞ্জে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে।

বগুড়ার শিবগঞ্জে মোকামতলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী (১৫) এর সাথে অ’নৈতিক সম্পর্ক করে একই এলাকার মাজারুল ইসলাম (১৯) নামের এক যুবক। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা বিউটী বেগম বাদী হয়ে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাত্রি সাড়ে ১২টায় শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মোকামতলা ইউনিয়নের চকপাড়া সরকার পাড়া গ্রামের খোকনের মেয়ে মোকামতলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী। তাকে গত ৯ জানুয়ারি সকাল ১১টার সময় একই গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে মাজারুল ইসলাম (১৯) ছাত্রীকে মায়ের সঙ্গে কাজের কথা বলে কৌশলে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। তাদের বাড়িতে কেউ না থাকায় বাড়ির প্রধান দরজা বন্ধ করে ছাত্রীকে ধরে। পরে বিভিন্ন ভ/য় দেখিয়ে তার ই’চ্ছার বি’রু’দ্ধে অ’নৈতিক সম্পর্ক করে। এ সময় ওই ছাত্রীর শব্দ আশপাশের লোকজন টের পেয়ে বাড়িতে আসলে বখাটে যুবক দৌ’ড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বিউটী বেগম বাদী হয়ে বখাটে যুবকের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ১৩ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১২টার সময় মামলা নেওয়া হয়েছে। মামলার প্রধান আসামি মাজারুল ইসলামকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রায় সময় এমন অভিযোগ উঠে আসছে। কিছু খারাপ চরিত্রের পুরুষ প্রতিনিত এমন অনৈতিক কাজের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। আর এই ঘটনার পর ওই যুবকে দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তি দেওয়ার কথা বলছে ওই গ্রামবাসী। তবে সেই অভিযুক্ত যুবক কে এখনো গ্রেফতার করা যায়নি।