টানা দ্বিতীয় মেয়াদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শেষ কার্যদিবস ছিল আজ বৃহস্পতিবার। এ কারণে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে যারা সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাবেন তারাই সরকার গঠন করবেন।
বিদায় বেলায় বক্তব্য দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার কার্যালয়ের কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে সকলের সহযোগিতা চান।
গত ১০ বছরে বাংলাদেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যে উন্নয়ন হয়েছে তার চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, এ উন্নয়নের ধারা বহাল রাখতে হবে। সরকার ২০২০ সালের মার্চ থেকে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত মুজিব বর্ষ ঘোষণা করেছে। এ ছাড়া এ সময়ে আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করব। ক্ষুধা এবং দারিদ্র্যমুক্ত অবস্থায় আমরা মুজিব বর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করতে চাই।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান। প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, কার্যালয়ের এসডিজিবিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, সামরিক সচিব মেজর মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান ও প্রেস সচিব ইহসানুল করিম অনুভূতি ব্যক্ত করে বক্তব্য দেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার নিয়ে তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে বিদায় নিলেন।