বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ড. আসিফ নজরুল প্রায় সময় নানা বিষয় নিয়ে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের পেজে স্ট্যাটাস দিয়ে থাকেন। এমনকি তিনি অতিতের স্মৃতিচারণ করেও প্রায় সময় লিখালেখি করে থাকেন। তেমনি এবার বেশ কিছু অতিতের স্মৃতিচারণ করে এই বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব সানাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে নিজেরে পেজে একটি স্ট্যাটাস দিলেন। পাঠকদের জন্য তার স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হল:

’’গ//ন//হ//ত্যা//র’’ বিচার চায়না বাংলাদেশ!
শ্রীলঙ্কায় গৃ’হযু’দ্ধ’কা’লে’র শেষদিকে তামিলদের বিরুদ্ধে নারকীয় যু’দ্ধা’প’রা’ধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধ সং’ঘ’টি’ত হয়েছে। সাউদ এশিয়ান ফর হিউম্যান রাইটস-এর নির্বাহী সদস্য থাকার সময় আমি বহুবার ম্রীলংকা গেছি। বহু স্থানীয় মানুষের কাছে এসব অপরাধের হৃ’দয়বিদারক বিবরণ শুনেছি।
কাল এসব অপরাধের জন্য বিচারের প্রশ্ন উঠেছিল জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে। আমি আশ্চর্য হয়েছি দেখে যে বিচারের প্রস্তাবের বিপক্ষে অন্য কিছু দেশের সাথে সাথে বাংলাদেশও ভোট দিয়েছে।
নিজ দেশে ১৯৭১ সালে ’’গ//ন//হ//ত্যা//র’’ ’’ভ’’য়া’’ব’’হ’’ ইতিহাস আছে আমাদের, এই ’’গ’’ন’’হ’’ত্যা’’র’’ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি চাই আমরা, এরজন্য পাকিস্তানী ’হা’না’দা’র’ বাহিনীর বিচার চাই। আর আমরা নিজেরা কিনা ভোট দেই শ্রীলংকায় ’’গ’’ন’’হ’’ত্যা’’র’’ বিচারের প্রস্তাবের বিপক্ষে!
আমি বুঝি আঞ্চলিক রাজনীতি বলে একটা বিষয় আছে। কিন্তু নৈতিকতা বলেও তো একটা বিষয় আছে। বাংলাদেশ এটলিস্ট ভোটদানে বিরত থাকতে পারতো এক্ষেত্রে।
তা না করে বাংলাদেশ কেন ১৯৭১ সালে পাকিস্তানকে সহায়তাকরী শ্রীলংকার জন্য এমন অনৈতিক ও স্বরিবোধী অবস্থান নিলো?

উল্লেখ্য, দেশের ইতিহাসে ১৯৭১ সালে ’’গ//ন//হ//ত্যা//র’’ ঘটনা দেশের মানুষ কখনো ভুলবেন না। তবে পাকিস্তান বাহিনীকে সেই সময় শ্রীলংকা সহায়তা করেছেন। আর এই সকল অতিতের স্মৃতি নিয়ে দেশের অনেক মানুষ কথা বলে থাকেন। তেমনি বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ড. আসিফ নজরুল অতিতের স্মৃতিচারণ করে এই স্ট্যাটাস দিলেন।