বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়ে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ পায়। এরপর থেকে দেশে বিদেশে এই বিষয় নিয়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। দেশের অনেক ব্যক্তি এই বিষয় নিয়ে নানা রকম কথা বলেন। তবে এবার সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ হু’ঙ্কা’র দিয়ে মুখ খুলেছেন। আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে একটি অনুষ্ঠান শেষে তিনি গণমাধ্যমের সামনে কথা বলেন।

সেনাবাহিনীকে নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে নতুন সেনাবৈমানিকদের ব্রেভেট প্রদান অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় মিথ্যা তথ্য প্রচারকারীদের সতর্ক করে তিনি বলেন, সশস্ত্রবাহিনীর সঙ্গে খেলতে আসবেন না। আল জাজিরার প্রতিবেদন ঘৃ’’ণা’’ভ’’রে প্র’’ত্যা’’খ্যা’’ন করছে সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনী দেশের গর্ব। এটিকে নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে নানান গু’’জ’’ব ছড়ানো হচ্ছে। বাহিনী এখন অনেক সু’’সং’’হ’’ত। পুরো চেইন অব কমান্ড সবাই-ই সতর্ক৷ সেনাবাহিনী সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। এসব প্রচারণায় কিছুই হবে না বাহিনীর।

সেনাপ্রধান বলেন, পরিবারের সদস্যরা অব্যাহতি পাওয়ার পরই ভাইয়েরা এসেছিল। আমরা সংবাদ সম্মেলনে সব বলবো। সেনাবাহিনীর ভাবমূর্তি বজায় রাখতে কি করতে হবে সে ব্যাপারে আমি ওয়াকিবহাল। আল-জাজিরা যা করেছে সেটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের সময় চিত্রধারণ প্রসঙ্গ তিনি বলেন, পারিবারিক কাজে অফিশিয়াল প্রটোকল ব্যবহার করিনি। সে সময়ই এমন কাজগুলো উদ্দেশ্যমূলকভাবে এসবের চিত্রধারণ করা হয়েছে। সেনাপ্রধানকে হেয় করার মানে প্রধানমন্ত্রীকে হে’য় করা। আমার কারণে সেনাবাহিনী ও সরকার যাতে বিব্রত না হয়। সে ব্যাপারে আমি পূর্ণ সচেতন। তারা কা’ট’পি’স দিয়ে এসব বানিয়েছে।

চ’’ক্রা’’ন্ত’’কা’’রী’’দে’’র উদ্দেশ্য কোনোভাবেই সফল হবে না বলেও জানান জেনারেল আজিজ আহমেদ।


উল্লেখ্য, বাংলাদেশের সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ গত কয়েকদিন আগে বিদেশ সফর থেকে দেশে ফেরেন। তবে তিনি যখন বিদেশে ছিলেন তখন তাকে নিয়ে নানা রকম আলোচনা শুরু হয়। তিনি দেশে ফেরার পর আজ মঙ্গলবার সকালে প্রথম গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন। এ সময় তিনি সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।